আশরাফুল–নাসিররা আপাতত বিভাগীয় দলের বাইরে

ফিটনেস পরীক্ষায় কাল যাঁরা পাশ করেছেন, তাঁদের নিয়ে জাতীয় লিগের দল তৈরি করা শুরু করেছেন নির্বাচকেরা। আজ ঢাকা মহানগর, সিলেট, চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগের দল করা শেষ। যে চারটি স্কোয়াড করা হয়েছে এখানে সুযোগ পাননি ফিটনেসের পরীক্ষায় ফেল করা মোহাম্মদ আশরাফুল, ইয়াসির রাব্বীদের মতো ক্রিকেটাররা।

কাল ঠিক করা হবে বাকি চারটি দল—খুলনা, ঢাকা বিভাগ, রংপুর ও রাজশাহী। জানা গেছে, এই চারটি দলেও সুযোগ মিলছে না ফিটনেস পরীক্ষায় খারাপ করা ক্রিকেটাররা। সেটি হলে নাসির হোসেন-তুষার ইমরানদের আপাতত বাইরে থাকতে হতে পারে স্কোয়াডের। তবে এখানে একটা ‘যদি’ রাখা হচ্ছে। কাল নির্বাচক হাবিবুল বাশার বলেছিলেন, ব্যর্থরা ফিটনেসের পরীক্ষা আবারও দিতে পারবেন। আজ একই কথারই প্রতিধ্বনি হাবিবুলের কণ্ঠে, ‘আজ চারটি দলের খসড়া করে ফেলেছি। বাকি চারটি করব কাল। যারা ফিটনেসের পরীক্ষায় পাস করেছে তাদের ১৫জনে রাখা হয়েছে। যারা করেনি তাদের আপাতত রাখছি না। গত জাতীয় লিগে যারা ভালো খেলেছিল তাদের একটা শর্তেই রাখা হচ্ছে, ফিটনেসের পরীক্ষায় ভালো করে আসতে হবে। ৬ ও ৮ অক্টোবর আবারও ফিটনেসের পরীক্ষা হবে। তখন যদি পাশ না করতে পারে, তাহলে দলে রাখা হবে না।’

বিসিবি সূত্রে জানা গেল, বিপ টেস্ট অন্তত ‘১১’ না পাওয়া চট্টগ্রামের ইয়াসির রাব্বী, রংপুরের নাসির হোসেন, ধীমান ঘোষকে আপাতত বিভাগীয় দলে রাখা হচ্ছে না। ক্যারিয়ারের বেশির ভাগ সময়ে ঢাকা মহানগরের হয়ে জাতীয় লিগ খেলা আশরাফুলকে এবার দেওয়া হচ্ছে বরিশালে। বাংলাদেশ দলের নিয়মিত সদস্য মাহমুদউল্লাহকে জায়গা করে দিতেই তাঁকে খেলতে হবে বরিশালে। অবশ্য বিপ টেস্টে খারাপ করায় বরিশালের হয়ে আশরাফুলের খেলা নিয়েও আছে সংশয়। হাবিবুল বললেন, ‘জাতীয় লিগ খেলতে হলে আশরাফুলকে আবারও পরীক্ষা দিতে হবে। সেখানে ভালো করলে তবেই সে বরিশালে খেলার সুযোগ পাবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *