বগুড়ার শেরপুরে প্রধান শিক্ষক কর্তৃক শিক্ষার্থীকে ধর্ষনের চেষ্টা ॥ কান ধরে উঠবস

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ
বগুড়ার শেরপুরে চক কল্যানী রইচা স্বতন্ত্র এবতেদায়ি মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক ও কল্যানী মসজিদ ভিত্তিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাওঃ রহমত আলী কর্তৃক ৩য় শ্রেনীর ছাত্রী (১১) কে ধর্ষনের চেষ্টার ঘটনায় ওই শিক্ষককে কান ধরে উঠবস করে ছাড়িয়ে নিয়ে গেছে এলাকার প্রভাবশালীরা। গত রোববার বিকেলে কল্যানী গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। প্রভাবশালীদের ভয়ে থানায় অভিযোগ দিতে পারছেনা বলে জানিয়েছেন ছাত্রীর বাবা।
জানা যায়, উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের চক কল্যানী গ্রামের মৃত কালু মেম্বরের ছেলে রহমত আলী দীর্ঘদিন ধরে চক কল্যানী রইচা স্বতন্ত্র এবতেদায়ি মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক ও কল্যানী গ্রামে মসজিদ ভিত্তিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করে আসছে। গত শনিবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে কল্যানী গ্রামের হাফিজুরের বাড়িতে অভিভাবকের জাতীয় পরিচয়পত্র আনতে যায়। এসময় বাড়িতে কেউ না থাকায় হাফিজুরের ৩য় শ্রেনীতে পড়–য়া শিশুকে জোর করে ধর্ষনের চেষ্টা করে। এ সময় সে চিৎকার করলে লম্পট পালিয়ে যায়। পরদিন রোববার সকালে আবার মসজিদ ভিত্তিক বিদ্যালয়ে ওই লম্পট গেলে তাকে কৌশলে ডেকে এনে গাছের সাথে বেধে রাখে শিশুটির পরিবারের লোকজন। এসময় লম্পটের ভাতিজা কল্যানী কমিউনিটি ক্লিনিকের হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার মাহবুব সোবহান বিদ্যুত প্রভাবশালী একই গ্রামের আমিনুর, হিটলার ও হাফিজুরকে খবর দিয়ে নিয়ে এসে লম্পট রহমত আলীকে কান ধরে উঠবস করিয়ে উভয় পক্ষের কাছ থেকে সাদা কাগজে স্বাক্ষর নিয়ে তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। ভুক্তভোগিরা প্রভাবশালীদের ভয়ে থানায় অভিযোগ দিতে পারছেনা বলেও অভিযোগ উঠেছে।
এ ব্যাপারে শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনার কোন অভিযোগ পাইনি তবে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Facebook Comments

You May Also Like

%d bloggers like this: