বিএনপি মনোনীত প্রার্থী জিএম সিরাজের গাড়িবহরে হামলা ধুনটে।

অনলাইন ডেস্ক  : বগুড়া-৫ (শেরপুর-ধুনট) আসনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাবেক এমপি গোলাম মোহাম্মদ সিরাজের (জিএম সিরাজ) গাড়ি বহরে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ সময় গোলাম মোহাম্মদ সিরাজের ব্যক্তিগত গাড়িসহ অন্তত ১০টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। এরমধ্যে কয়েকটি মোটরসাইকেলে আগুন দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন জিএম সিরাজ।এ ঘটনায় বিএনপির বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলেও জানান তিনি। মঙ্গলবার (১১ ডিসেম্বর) বেলা পৌনে ১২টার দিকে ধুনট উপজেলা শহরের কলাপট্টি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হামলার ঘটনায় পুরো শহর এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। পুরো শহরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, সোমবার (১০ ডিসেম্বর) নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দের পর ধুনটের এলাঙ্গী বাজার এলাকায় সন্ধ্যার দিকে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী প্রচার-প্রচারণাকালে বিএনপির দুই নেতা নাদিম ও মাসুদকে মারপিট করেন।

এরই ধারাবাহিকতায় দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে পুনরায় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা সংবদ্ধ হয়ে ধুনটের রাঙামাটি গ্রামে যুবদল নেতা মুরাদের বাড়ি আগুনে জ্বালিয়ে দেন। এতে প্রায় ১০ লাখ টাকার মতো ক্ষতি হয়। তবে হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

মঙ্গলবার (১১ ডিসেম্বর) বেলা পৌনে ১২টার দিকে বিএনপিপ্রার্থী গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ চারটি জিপ গাড়ি ও শতাধিক মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে যুবদল নেতা মুরাদের বাড়ি পরিদর্শনে রওনা হন। পথিমধ্যে ধুনট শহরের কলাপট্টি এলাকায় তার গাড়ি বহর পৌঁছালে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা গাড়িবহরে হামলা চালান।

পরে সিরাজসহ তার দলের নেতাকর্মীরা ধুনটের হুকুমআলী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ফিরে আসেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গোলাম মোহাম্মদ সিরাজসহ তার দলের নেতাকর্মীরা সেখানে অবস্থান করছিলেন। বিএনপিপ্রার্থী গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ বাংলানিউজকে বলেন, প্রকাশ্যে আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা সশস্ত্র হয়ে আমার এবং আমার দলের নেতাকর্মীর ওপর হামলা চালিয়েছে।

তিনি বলেন, আমার সঙ্গে আমার দলের নেতাকর্মীর কোনো বিরোধ নেই। সবাই আমার সঙ্গে রয়েছেন। অতএব আমার দলের কোনো নেতাকর্মী এ হামলার ঘটনা ঘটায়নি। আওয়ামী লীগের সশস্ত্র ক্যাডার বাহিনী পরিকল্পিতভাবে আমাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। গাড়ি ভাঙচুর করেছে, মোটরসাইকেলে আগুন দিয়েছে, নেতাকর্মীদের আহত করেছে।

সোমবার (১০ ডিসেম্বর) রাতের ঘটনা সম্পর্কে ধুনটের এলাঙ্গী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও একই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম এ তারেক হেলাল বাংলানিউজকে জানান, বিক্ষুব্ধ লোকজন ওই ঘটনা ঘটিয়েছে। ওই ঘটনার সঙ্গে আওয়ামী লীগের কোনো নেতাকর্মী জড়িত নেই। বিএনপি উল্টো তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে বলেও দাবি করেন এ আওয়ামী লীগ নেতা।

তবে মঙ্গলবারের (১১ ডিসেম্বর) ঘটনা নিয়ে কোনো আওয়ামী লীগ নেতার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। দুপুরে ধুনট থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি-তদন্ত) ফারুকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে জানান, কিছু সংখ্যক বিপদগামী লোকজন বিএনপিপ্রার্থী গোলাম মোহাম্মদ সিরাজের গাড়িবহরে হামলা করেছে। এ সময় তার ব্যক্তিগত গাড়িসহ কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি তাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। পুরো শহর এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযোগ দিলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Facebook Comments

You May Also Like

%d bloggers like this: